Kidnapআরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে ৬ষ্ঠ শ্রেণীর স্কুল ছাত্রী রাজিয়া খাতুন প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখান করায় ইউসুফ নামের এক যুবক তাকে জোরপূর্বক অপহরণ করে নিয়ে গেছে। এব্যাপারে থানায় একটি এজাহার দায়ের হয়েছে।

এজাহার সূত্রে জানা গেছে, গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার সাপমারা গ্রামের এবাদুল মন্ডলের কন্যা রাজিয়া খাতুন রেবা (১২) উপজেলার শাহাজাহান বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী। একই উপজেলার মাদারপুর গ্রামের ইনছের আলী মুন্সীর পুত্র ইউসুফ মিয়া (২৫) স্কুলে যাওয়া-আশার পথিমধ্যে দীর্ঘদিন থেকে প্রেম ও বিবাহের প্রস্তাব দিয়ে উত্ত্যক্ত করে আসছিল।

এঘটনাটি রাজিয়া তার পরিবারকে জানালে তার পরিবারের লোকজন ইউসুফ মিয়ার পিতা-মাতাকে অবগত করেন। এতে ইউসুফ মিয়া ক্ষিপ্ত হয়ে গত ১৪ নভেম্বর ইউসুফ মিয়া তার দলবলসহ রাস্তায় ঔৎপেতে থাকে এবং বিকেল ৪টার দিকে স্কুল ছুটি শেষে রাজিয়া বাড়ী ফেরার পথে কোটালপুর খেলা মাঠ সংলগ্ন পৌঁছা মাত্র রাজিয়াকে জোরপূর্বক টানাহেচড়া করে একটি সিএনজিতে তুলে অপহরণ করে নিয়ে যায়।

এসময় রাজিয়ার সাথে থাকা অন্যান্য ছাত্রীদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে আশার আগেই অপহরণকারীরা রাজিয়াকে নিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়। এরপর রাজিয়ার পরিবারের লোকজন বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করে তাকে না পেয়ে গত ১৯/১১/১৫ইং তারিখে রাজিয়ার পিতা এবাদুল মন্ডল বাদি হয়ে মাদারপুর গ্রামের ইনছের মুন্সীর পুত্র ইউসুফ মিয়া, জাফিরুল ইসলামের পুত্র সজিব মিয়া ও খামারপাড়া গ্রামের মোজদার আলীর পুত্র শাহিন মিয়াকে আসামী করে গোবিন্দগঞ্জ থানায় একটি এজাহার দায়ের করেছে। এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত পুলিশ রাজিয়াকে উদ্ধার করতে পারেনি।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য