08আন্তর্জাতিক: প্যারিসে হামলাটির পরিকল্পনা সিরিয়ায় করা হয়েছে এবং সেখান থেকেই এর সব আয়োজন করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন ফরাসি প্রধানমন্ত্রী ম্যানুয়েল ভ্যালাস। পাশাপাশি ফ্রান্সে ও ইউরোপের অন্যান্য দেশেও নতুন সন্ত্রাসী হামলা চালানোর পরিকল্পনা করা হয়েছে বলে ফরাসি কর্তৃপক্ষ বিশ্বাস করে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

ভ্যালাসের বরাতে বিবিসি বলছে, সন্দেহভাজন জঙ্গিদের খোঁজে গতকাল দিনের শুরুতে ফ্রান্সজুড়ে ১৫০টি জায়গায় অভিযান চালানো হয়েছে।

ফরাসি পুলিশের সূত্রগুলো জানিয়েছে, প্যারিসের ববিনিসহ গনব্লাঁ, তুঁলুজ ও লিয়ন শহরের সন্দেহভাজন বাড়িগুলিতে এসব অভিযান চালানো হয়।

প্যারিসের কয়েকটি বার, রেস্তরাঁ ও একটি কনসার্ট হলে এবং জাতীয় স্টেডিয়াম স্তাদে দে ফ্রঁসে শুক্রবার রাতে চালানো জঙ্গি হামালায় ১২৯ জন নিহত হন।

ইসলামপন্থি যে দলটি এসব হামলার সঙ্গে জড়িত তাদের জীবিত সদস্য ও অন্যান্য সহযোগীদের ধরতে ব্যাপক অভিযান চালানো হচ্ছে।

ভ্যালাস বলেছেন, ফ্রান্স কোনো একটি সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর সঙ্গে লড়ছে না, বরং একটি ‘সন্ত্রাসী সেনাবাহিনীর’ সঙ্গে লড়ছে।

তিনি আরো বলেন, আমরা জানি, শুধু ফ্রান্সের বিরুদ্ধে না, অন্যান্য ইউরোপীয় দেশের বিরুদ্ধেও হামলার পরিকল্পনা তৈরি করা হয়েছে এবং তৈরি করা হচ্ছে।

প্যারিসে হামলাকারী সম্ভাব্য আট জঙ্গির মধ্যে সাত জঙ্গি নিহত হয়েছেন, নিহতদের বেশিরভাগই আত্মঘাতী বিস্ফোরণে মারা গেছেন। ধারণা করা হচ্ছে সালাহ আব্দেসালাম নামের ২৬ বছর বয়সী অপর জঙ্গি পালিয়ে আছেন।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য