03আর্ন্তজাতিক: ইয়েমেনে চলতি মাসে দু’টি আকস্মিক ঘূর্ণিঝড়ের কারণে ২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। যুদ্ধ-বিধ্বস্ত দেশটির দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় শহরে ঘূর্ণিঝড়ের কারণে হাজার হাজার পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। গত শনিবার জাতিসংঘের এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

দেশটির মূল ভূখন্ড থেকে ৩শ ৫০ কিলোমিটার দূরে আরব সাগরের সকোট্রা দ্বীপে চলতি মাসে চাপালা এবং মেঘ নামের দু’টি ঘূর্ণিঝড় আঘাত হেনেছিল। এছাড়া দেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ শাবওয়া এবং হাদরামওতেও আঘাত হেনেছিল ঘূর্ণিঝড়।

ইউএন অফিস ফর দ্য কো-অরডিনেশন অফ হিউমেনিটারিয়ান এ্যাফেয়ার্স (ওসিএইচএ) জানিয়েছে, দু’টি ঘূর্ণিঝড়ের আঘাতে দেশটিতে প্রায় ২৬ জন প্রাণ হারিয়েছে বলে জানিয়েছে। শাবওয়া এবং হাদরামওতে প্রায় ৬ হাজার ৪শ বেশি পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এছাড়া ঘর-বাড়ির ব্যাপক ক্ষতি হওয়ায় গৃহহীন হয়েছে প্রায় দেড় হাজার মানুষ।

দ্য ওয়ার্ল্ড মেটেওরোলোজিকাল অরগ্যানাইজেশন জানিয়েছে, আরব উপদ্বীপে উষ্ণ ঘূর্ণিঝড়ের ঘটনা অস্বাভাবিক। আর পরপর দু’বার ঘূর্ণিঝড় তো একেবারেই অস্বাভাবিক ঘটনা। ওসিএইচএ জানিয়েছে, উপসাগরীয় দেশগুলো কমপক্ষে ১৭ টি বিমানে করে ঘূর্ণিঝড় কবলিত এলাকায় মানবিক সাহায্য পাঠিয়েছে।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য