adalotআরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ গাইবান্ধা সদর উপজেলার আনালেরতাড়ী গ্রামের এক যুবতীকে (১৭) এসিড নিক্ষেপের দায়ে আব্দুল খালেক (৩১) নামে যুবককে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। গাইবান্ধা জেলা ও দায়রা জজ এসিড অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনাল’র বিচারক রাশেদা সুলতানা বৃহ¯পতিবার দুপুরে আসামির উপস্থিতিতে এ রায় দেন। একই সঙ্গে ৬০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও দেড় বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়। দণ্ডপ্রাপ্ত আব্দুল খালেকের একই গ্রামের জয়নাল আবেদীনের ছেলে।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, সদর উপজেলার আনালেরতাড়ী গ্রামের জনৈক ব্যক্তির দু’মেয়ে ২০০৭ সালের ৬ নভেম্বর রাতে নিজ ঘরে ঘুমাতে যান। এ সময় আব্দুল খালেক কৌশলে ঘরের দরজা খুলে এসিড নিক্ষেপ করে পালিয়ে যায়। এতে ওই যুবতীর মুখ, বুক ও পিঠের অংশ এবং তার বোনের ঘাড় ও পিঠের অংশ ঝলসে যায়। ওই ঘটনায় ওই যবতীর মা বাদী হয়ে সদর থানায় ৭ নভেম্বর আব্দুল খালেককে আসামি করে এসিড নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করেন। তদন্ত শেষে তদন্ত কর্মকর্তা আবদুল খালেককে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনাকারী কৌঁসুলি পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) মো. শফিকুল ইসলাম জানান, আসামি আবদুল খালেকের বিরুদ্ধে অভিযোগ আদালতে প্রমাণিত হওয়ায় তার উপস্থিতিতে দীর্ঘ শুনানি শেষে বিচারক যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দেন। একই সঙ্গে ৬০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দেন বিচারক।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য