আরাফাতকে হত্যা করেছে ইসরাইলআন্তর্জাতিক: ফিলিস্তিনি মুক্তি সংস্থা বা পিএলও’র সাবেক নেতা ইয়াসির আরাফাতকে হত্যা করেছে ইহুদিবাদী ইসরাইল। ফিলিস্তিনি তদন্ত দলের প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে।

তদন্ত দলের প্রধার তৌফিক তিরাভি এ বিষয়ে সুস্পষ্ট করে বলেছেন, ইহুদিবাদী ইসরাইলের গুপ্ত হত্যার স্বীকার হয়েছেন ইয়াসির আরাফাত। তৌফিক বলেন, “আরাফাতকে হত্যার জন্য ইসরাইল দায়ী তবে হত্যার সঠিক পারিপার্শ্বিক অবস্থা ব্যাখ্যার জন্য আমাদের আরো কিছু সময়ের প্রয়োজন রয়েছে।”

শান্তিতে নোবেল বিজয়ী ইয়াসির আরাফাতের হত্যাকাণ্ডের একাদশ বার্ষিকীর একদিন আগে ফিলিস্তিনি তদন্ত দল এ প্রতিবেদন প্রকাশ করল। অথচ মাস দুয়েক আগে ফ্রান্সের একটি তদন্তকারী দল আরাফাতের হত্যার বিষয়ে সুনির্দিষ্ট কোনো অভিযোগ ছাড়াই তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

২০১২ সালে ইয়াসির আরাফাতের বিধবা স্ত্রী সুহা ফ্রান্সের আদালতে একটি অভিযোগ দায়ের করেন যাতে ইয়াসির আরাফাতকে হত্যার কথা বলা হয়েছে। সুহা দাবি করেছেন, ২০০৪ সালে ফ্রান্সের মার্সি সামরিক হাসপাতালে অবস্থানের সময় তার স্বামীকে হত্যা করা হয়। এর মাস খানেক আগে ব্যাপক ডায়রিয়া ও বমি শুরু হলে আরাফাতকে এ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। মৃত্যুর পর ফ্রান্সের ডাক্তাররা বলেছিলেন, মারাত্মক রকমের স্ট্রোকের পর ইয়াসির আরাফাত মারা গেছেন।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য