rowmari picture 03-11-2015সাখাওয়াত হোসেন সাখাঃ যৌতুকের পালসার মটরসাইকেল দিতে না পারায় স্বামীর নির্যাতনে কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলার বন্ধেবের ইউনিয়নের কুটির চর খানপাড়া গ্রামে বিষ পান করে আত্মহত্যা করার চেষ্টা করেছে শিল্পী খাতুন(১৬) নামে এক গৃহবধু। শিল্পীর বাবা আফছার আলী জানান, প্রায় ২ বছর আগে রৌমারী উপজেলার দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের কাজাইকাটা গ্রামের জিলহক মিয়ার ছেলে রুবেল সাথে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে রুবেল তার পরিবারের সদস্যরা যৌতুকের জন্য শিল্পীকে নানা ভাবে চাপ দিয়ে আসছিল। বিভিন্ন সময়ে শিল্পীর বাবার বাড়ী থেকে সেগুলো পূরনের চেষ্টা করা হয়েছে। কখনো দেয়াও হয়েছে।

সম্প্রতি শিল্পীর বাবার বাড়ি এল জামাই ফোনে তার কাছে ফার্নিচার ও দামি পালসার সটর সাইকেল কিনে দেবার দাবী করে। কিন্তু শিল্পীর বাবা দিনমজুর আফছার আলী পক্ষে ধারদেনা করে ফার্নিচার দেয়ার প্রতিশ্রতি দেয়া হলেও পালসার দিতে পারবেনা বলে জানানো হয়। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে রুবেল গত রোববার বিকেলে তালাক দেয়ার হুমকি দিয়ে শিল্পীকে ফোন করে। এতে মানসিকভাবে বিপর্যস্থ শিল্পী গতকাল (২ নভেম্বর) সোমবার রাতে কোন এক সময় ঘরের ভিতরে রাসায়নিক বিষ পান করে।

এদিকে এ আত্মহত্যার চেষ্টার ঘটনার জন্য তার স্বামী ও পরিবারের লোকদের দায়ি করে শিল্পী এবং তার বাবা ,মা। শিল্পীর বাবার একটাই দাবী এখন আমি তার বিচার চাই। রৌমারী সরকারি হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার দেলোয়ার হোসেন বলেন, চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে ৭২ ঘন্টা পার না হওয়া পর্যন্ত কিছুই বলা যাবে না। এ ব্যাপারে রৌমারী থানার অফিসার ইনচার্জ এবি সাজেদুল ইসলামের সাথে কথা হলে তিনি বলেন এখন ঐ অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পাইলে তদন্ত করে আইন অনুযায়ী  ব্যবস্থা নেয়া হবে।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য