তুরস্কে নিরঙ্কুশ জয় পেয়েছে এরদোয়ানের দলডেস্ক: তুরস্কের নির্বাচনে প্রত্যাশার চাইতেও ভালো ফলাফল করেছে প্রেসিডেন্ট রেসিপ তায়েপ এরদোয়ানের দল। রোববারের পার্লামেন্ট নির্বাচনে তার দল জাস্টিজ এন্ড ডেভলপমেন্ট পার্টি বা একে পার্টি ৫০ শতাংশ ভোট পেয়েছে বলে বিবিসি ও রয়টার্স জানিয়েছে। একে গণতন্ত্রের জয় হিসেবে উল্লেখ করেছেন প্রধানমন্ত্রী আহমেত দাভুতোগলু।

নির্বাচনে ক্ষমতাসীন একে পার্টি পেয়েছে ৪৯ দশমিক ৪ ভাগ ভোট। তাদের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী রিপাবলিকান পিপলস পার্টি (সিএইচপি) পেয়েছে ২৫ দশমিক ৪ ভাগ ভোট। নির্বাচনে ১১ দশমিক ৯ ভাগ ভোট পেয়েছে ডানপন্থি ন্যাশনালিস্ট অ্যাকশন পার্টি এবং ১০ দশমিক ৭ ভাগ ভোট পেয়েছে বামপন্থি পিপলস ডেমোক্রেটিক পার্টি(এইচডিপি)। নির্বাচনে প্রায় সব ভোট গণনাই শেষ হয়েছে।

ভোটের এই ফলাফল থেকে ধারণা করা হচ্ছে, ৫৫০ আসনের পার্লামেন্ট ৩১৬টি আসনে নিশ্চিত জয় পাচ্ছে এরদোয়ানের দল একে পার্টি। ফলে অতি সহজেই তারা একক সরকার গঠন করতে পারছে। সংবিধান অনুযায়ী দেশটিতে কোনো দল পার্লামেন্টে ২৭৬ আসন পেলেই একক সরকার গঠন করতে পারে।

নির্বাচনে জয়লাভের পর গত রোববার রাতে নিজ শহর কোনিয়াতে দলের কর্মী সমর্থকদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রী আহমেত দাভুতোগলু। সেখানে তিনি বলেন, ‘আমাদের দেশে কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী বা শত্রু নেই। এ নির্বাচনে কেউ হারেনি-কেবল গণতন্ত্র বিজয়ী হয়েছে।’

দেশটিতে বিচ্ছিন্নতাবাদী কুর্দিদের সঙ্গে সরকারের একটানা সংঘাত এবং আঙ্কারার শান্তিপূর্ণ মিছিলে বোমা হামলার পর এ নির্বাচনটি ছিল প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানের জন্য একটি বড় চ্যালেঞ্জ। তিনি এতে ভালোভাবেই উতরে গেছেন।

প্রসঙ্গত, গত মাঁচ মাসের মধ্যে তুরস্কে গত রোববার দ্বিতীয়বারের মত ভোট অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে প্রেসিডেন্ট রেসেপ তায়েপ এরদোয়ানের একে পার্টি পার্লামেন্ট সংখ্যাগরিষ্টতা হারানোর পর গত গত জুনে দেশটিতে নির্বাচন হয়েছিল। গত ১৩ বছরের মধ্যে সেটিই ছিল তুরস্কের প্রথম নির্বাচন।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য