আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ গাইবান্ধা শহর সংলগ্ন ঘাঘট নদীর বিভিন্ন পয়েন্ট থেকে ড্রেজার ও শ্যালো মেশিন বসিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে তা বিক্রি করছে প্রভাবশালী বালু ব্যবসায়িরা। ফলে ঘাঘট নদীর দুই পাড়ের শহর রক্ষা বাঁধটি এখন চরম হুমকির মুখে পড়েছে। শুধু মেশিন বসিয়েই নয়, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ি বালু ব্যসায়িরাও প্রতিনিয়ত কোদাল দিয়ে বাঁধ সংলগ্ন বালু এবং মাটি কেটে ঠেলাগাড়ি ও ট্রাক্টর দিয়ে বালু পরিবহন করে নিয়ে যাচ্ছে। এব্যাপারে অভিযোগ পাওয়ার পর নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো. আবু সুফিয়ান সোমবার সন্ধ্যায় এক অভিযান চালিয়ে বালু তোলা মেশিন ও ড্রেজার, পাইপ আটক করেন। পরে তাৎক্ষনিকভাবে সেখানে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে ড্রেজার মালিক মনোয়ার হোসেনকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন থেকে ঘাঘট নদীর বিভিন্ন পয়েন্টে ওই বালু ব্যবসায়ি মনোয়ার হোসেন অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে ব্যবসা করে আসছেন। এছাড়া ঠিকাদাররাও ঘাঘট নদীর মৎস্য অভয়াশ্রম থেকে বালু উত্তোলন করে তাদের নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করছেন অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে, শহর রক্ষা বাঁধটি অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের ফলে বিপন্ন হয়ে পড়লেও অজ্ঞাত কারণে পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষ নিরব দর্শকের ভুমিকা পালন করে আসছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য