সিআইএ প্রধানের ব্যক্তিগত ইমেইল ফাঁসসিআইএ প্রধান জন ব্রেনানের ব্যক্তিগত বেশকিছু ইমেইল ফাঁস করেছে উইকিলিকস, যার মধ্যে ২০০৭ সালে জাতীয় নিরাপত্তা সংশ্লিষ্ট ৪৭ পৃষ্ঠার একটি খসড়া নথিও রয়েছে।

বিবিসি বলছে, বুধবার নিজেদের টুইটার অ্যাকাউন্টে উইকিলিকস ব্রেনানের ইমেইল থেকে পাওয়া ছয়টি নথি ফাঁস করেছে।

২০১৩ সালে ব্রেনান সিআইএ’র প্রধান নিযুক্ত হন। এর আগের চার বছর তিনি রাষ্ট্রপতির ‘অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা ও সন্ত্রাসবাদ’ বিষয়ক সহকারি হিসেবে কাজ করেছেন।

উইকিলিকস প্রকাশ করার আগে সোমবার ‘ক্র্যাকা’ নামে এক টুইটার একাউন্ট থেকে ব্রেনানের ব্যক্তিগত ‘এওএল’ ইমেইল অ্যাকাউন্ট হ্যাক করার দাবি

করে বেশ কয়েকটি সম্পাদিত ছবি প্রকাশ করা হয়, যেগুলোতে সরকারি গোপন তথ্য থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ওয়াশিংটন পোস্ট জানিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিদেশনীতির উপর ক্ষিপ্ত ও ফিলিস্তিনের প্রতি সহমর্মী ওই ‘অমুসলিম’ হ্যাকারের বয়স ১৩ এবং সে মাধ্যমিক স্কুলের ছাত্র বলে তাদের কাছে দাবি করেছে।

সিডব্লিউএ’র প্রকাশিত ইমেইলগুলোতে বেশ কয়েকজন শীর্ষ মার্কিন গোয়েন্দাদের পরিচিতি ও সন্ত্রাসবাদী যুদ্ধে জড়িত সন্দেহে আটক ব্যক্তিদের উপর চালানো ‘নিষ্ঠুর জিজ্ঞাসাবাদ পদ্ধতির সারমর্ম’ রয়েছে বলে ওয়াশিংটন পোস্ট জানায়।

পরে উইকিলিকসের ফাঁস করা ইমেইলে দেখা যায়, জিজ্ঞাসাবাদ পদ্ধতি নিয়ে ২০০৮ সালে সিনেট সিলেক্ট কমিটির চেয়ারম্যান তার বোর্ডের অপরাপর সদস্যদের কাছে যে চিঠি পাঠিয়েছেন তা ব্যক্তিগত ইমেইলে স্থানান্তর করেন ব্রেনান। পরে সেখান থেকে সেগুলো নেয় ‘ক্র্যাকা’।

উইকিলিকসের সঙ্গে এই হ্যাকারের যোগসূত্র থাকতে পারে বলে মার্কিন গোয়েন্দারা ধারণা করছেন।

উইকিলিকস আরো একটি ইমেইল প্রকাশ করেছে, যার অসমাপ্ত শেষ অংশের শিরোনাম ‘ডেমেজিং লিকস অব ক্লাসিফায়েড ইনফরমেশন’।

এফবিআই এবং অন্যান্য গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা ব্রেনানের ব্যক্তিগত ইমেইল অ্যাকাউন্ট হ্যাকের বিষয়টি তদন্ত করছে।

সিআইএ এক বিবৃতিতে ব্রেনানের পারিবারিক ইমেইল অ্যাকাউন্ট হ্যাক ও প্রকাশকে ‘দুরভিসন্ধিমূলক অপরাধ’ হিসেবে চিহ্নিত করেছে।

তবে প্রকাশিত ইমেইলগুলো ‘অতি গোপনীয়’ কিছু নয় উল্লেখ করে এক বিবৃতিতে তারা বলেছে, “সত্যি কথা হচ্ছে, তারা (উইকিলিকস) এমন কতগুলো কাগজ প্রকাশ করেছে যেখানে একজন সাধারণ নাগরিক জাতীয় নিরাপত্তায় তার আগ্রহের বিষয়ে আরো দক্ষ হয়ে উঠবে বলে আশা করা যাচ্ছে।”

বেশ কয়েক বছর ধরেই উইকিলিকস যুক্তরাষ্ট্রের অনেক কূটনৈতিক গোপন নথি ফাঁস করে আসছে, যা মার্কিন বিদেশনীতির জন্য চিন্তার কারণ হয়ে উঠছে।

টুইটার অ্যাকাউন্টে উইকিলিকস জানিয়েছে, ব্রেনানের আরো ইমেইল ‘শিগগিরই’ প্রকাশ করা হবে।

জাতীয় নিরাপত্তার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গের ‘ব্যক্তিগত ইমেইল’ যুক্তরাষ্ট্রে এখন অত্যন্ত আলোচিত ইস্যু।

সাম্প্রতিক মাসগুলোতে যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের ইমেইলও গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু হয়ে উঠেছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী থাকাকালীন তিনি ‘তার ব্যক্তিগত ইমেইল জাতীয় নিরাপত্তা সংশ্লিষ্ট ইস্যুতে ব্যবহার’ করেছিলেন বলে উঠা অভিযোগের সুরাহা এখনো হয়নি।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য