OLYMPUS DIGITAL CAMERAআনোয়ার হোসেন, রাণীশংকৈল, ঠাকুরগাওঃ হরিপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সুবাতাস বইছে ১৯ দলীয় জোটের প্রার্থীর পক্ষে। ফাগুনের ভরা যৌবনে মৌ মৌ শব্দের মিতালি। আ’লীগের মনোনীত প্রার্থী থাকলেও আরো দু’জন বিদ্রোহী প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দিতা করায় ১৯ দলীয় জোটের মনোনীত সাবেক অধ্যক্ষ নুরুল ইসলাম কাপ পিরিচ প্রতিক নিয়ে বেশ ফুর ফুরে মেজাজে নির্বাচনে মাঠ চুষে বেড়াচ্ছেন। উপজেলা চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসাবে জনগনের কাছে দোয়া নিয়ে ছুটছেন ভোটারদের দ্বারে দ্বারে পদধুলি দিয়ে আশীর্বাদ কামনা করেছেন। ১৯ দলীয় জোটের জোগ্য প্রার্থী হওয়ায় বষন্তের ভরা যৌবনের হিমেল হাওয়া, কোকিলের সুমিষ্ট সুর যেন উতাল করে তুলেছে উপজেলার শহর থেকে তৃণমুল পর্যায়ের ভোটারদের। বষন্তের ছোঁয়া লেগেছে কাপ পিরিচ প্রতিক নিয়ে ছুটে চলা উপজেলা পরিষদ  নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মোঃ নুরুল ইসলাম। নির্বাচনের ভরা যৌবনের ছোঁয়া পেয়ে বেশ ইমেজে আছেন তিনি।

উপজেলাবাসির সাড়া পেয়ে মানুষের মাঝে এসে জনসেবা করার স্বপ্ন দেখছেন তিনি। উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী নুরুল ইসলাম’র সততা, বুদ্ধিমত্ত্বা প্রতিটি মানুষের হৃদয়ে ভালবাসার আঁচড় কেটেছে। ছাত্ররাজনীতির সাথে সক্রীয়ভাবে জড়িত থেকে দলীয় কার্যক্রমে সফলতা অর্জন করেছেন। একজন সফল ব্যক্তিত্ত্ব হিসেবে ভাবছেন উপজেলা নির্বাচনে বিজয়ী হলে শিক্ষা, ক্রীড়া ও সংস্কৃতির মান উন্নয়ন করে হরিপুর উপজেলায় নতুন মাইল ফলক তৈরী করবেন। রাজনীতিবিদ হিসাবে এলাকায় সু-পরিচিত ও উপজেলার উন্নয়ন মুলক কাজে তার অগ্রণী ভুমিকা রয়েছে অপরিসীম। এছাড়াও গরীব দুস্থদের সাহায্য সহযোগিতা করে তার অবদান রেখেছেন যথেষ্ট।

এলাকার মানুষের কাছে অতি পরিচিতজন ও কাছের মানুষ হিসেবে ভোটারদের মনে জায়গা করে নিয়েছেন। তিনি জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সকলের কাছে ছুটে গিয়ে হয়েছেন সবার সুখ দুঃখের ভাগিদার। তিনি কাপ পিরিচ প্রতিক নিয়ে ছুটছেন শহর থেকে তৃণমুল পর্যায়ে। প্রতিক পরিচিতি, কুশল বিনিময় জানাতে হাত বাড়িয়েছেন ভোটারদের টেনে নিচ্ছেন বুকে। ভোটাররা যেন মনের মানুষটির সাথে বুকে বুক মিলিয়ে তৃপ্তি পাচ্ছে অনেকটায়। তিনি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে উপজেলার গরীব দুঃখী মেহনীতি মানুষের পাশে দাঁড়াতে চান।  উপজেলার উন্নয়নমূলক কাজের প্রসার ঘটাতে চান। বষন্ত’র মিষ্টি হাসি দুষ্টু চাহনি দিয়ে ভালবাসার উষ্ণ অভিন্দন জানাচ্ছে। কোকিল’র শ্লোগান গাছে গাছে ফুটে থাকা ফুলের গাঁথা মালা ভোটযুদ্ধে ছুটে চলা নুরুল ইসলামে গলায় পড়িয়ে দেয়ার জন্য। সাবেক অধ্যক্ষ নুরুল ইসলাম বলেন, ১৫ মার্চ’র নির্বাচনে বিজয় অর্জন করব ইনশাআল্লাহ। কাপ পিরিচ প্রতিকের বিজয় উপজেলাবাসির বিজয় ও গর্র্ব।

অপরদিকে ১৯ দলীয় জোটের জামায়াত মনোনীত প্রার্থী মাওঃ মোঃ রফিকুল ইসলাম তালা প্রতিক নিয়ে অনেকটায় মাঠ গুছিয়ে ফেলেছেন। তালা প্রতিকের বিজয়ের স্বপ্ন দেখছেন হরিপুর উপজেলাবাসি। উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে আরো দু’জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দিতা করলেও মাওঃ মোঃ রফিকুল ইসলামের বিজয় অর্জনের সম্ভাবনায় বেশী বলে সকলের অভিমত। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে সাবিনা ইয়াসমিন রিপা গত পাঁচ বছর ধরে মাঠ দখল করে থাকলেও অনেকটায় বেসামাল হয়ে পড়েছেন। ১৯ দলীয় জোটের বিএনপি মনোনীত প্রার্থী নাজমা পারভিন কলস প্রতিক নিয়ে উপজেলাবাসির মনে জায়গা করে নিয়েছেন।

হরিপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ১৯ দলীয় জোট সমর্থীত প্রার্থীদের বিজয়ের কথা ভাবছেন রাজনীতিবীদগণ ও উপজেলাবাসি যেন এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র।

তৃতীয় ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে হরিপুর উপজেলার পুরুষ ভোটার ৪৪,৭০৮ জন ও মহিলা ভোটার সংখ্যা ৪৪,৩৯১ জন। উপজেলায় ৩৬ টি ভোট কেন্দ্রে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য