Biddut open bochaganj-dinajpur pic-19-10-2015 copy.jpg-মোঃ শামসুল আলম বোচাগঞ্জ॥ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি বলেছেন বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর বাংলাদেশকে ডিজিটালাইস করার সিদ্ধান্ত গ্রহন করেন। কিন্তু বিদ্যুৎ ছাড়া দেশকে ডিজিটালাইস করা সম্ভব নয়। যে কারণে প্রধানমন্ত্রী কুইক রেন্টাল এর মাধ্যমে দেশের বিদ্যুৎ ঘাটতি পুরণের সিদ্ধান্ত গ্রহন করেন। এই সিদ্ধান্ত গ্রহনের পর তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া এই সিদ্ধানের বিরোধীতা করে বলেছিলেন কুইক রেন্টাল এর মাধ্যমে বিদ্যুৎ উৎপাদন করা হলে দেশের সাধারণ মানুষের উপর অর্থনৈতিক চাপ এবং দেশে অর্থনৈতিক অচলাবস্থা সৃষ্টি হবে।

তিনি বলেন এখন খালেদা জিয়ার সেই মনতব্য ভুল প্রমানিত হয়েছে। দেশের মানুষের উপর অর্থনৈতক চাপ সৃষ্টি না হলেও দেশে ৩ হাজার ২শ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ থেকে গত ৬ বছরে অতিরিক্ত ১১ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যূত উৎপাদন করা সম্ভব হয়েছে। বর্তমানে দেশে ৮হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ চাহিদার বিপরীতে ১৪ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুত উৎপাদন করা হচ্ছে। এখন দেশে কোন লোড শেডিং নেই। দেশের মানুষ শান্তিতে বসবাস করছে।

তিনি বলেন সরকারের ধারাবাহিকতা বজায় থাকলে আগামী ২০২০ সালের মধ্যে বাংলাশের প্রতিটি ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেয়া হবে। গত রবিবার বিকালে বিদ্যুতায়ন উপলক্ষে বোচাগঞ্জ উপজেলার বাসুদেবপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও রাতে চন্ডিপুর এম দাখিল মাদ্রারাসা মাঠে দিনাজপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর পরিচালক আসাদুজ্জামান রাজার সভাপতিত্বে  প্রধান অতিথির বক্তব্যে খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি একথাগুলো বলেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ রাশেদুল ইসলাম, দিনাজপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর জেনারেল ম্যানেজার ইঞ্জিনিয়ার কাজী মোহাম্মদ আলী প্রমুখ।

এছাড়াও বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান ফরহাদ হাসান চৌধুরী ইগলু, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আবু সৈয়দ হোসেন, সাধারন সম্পাদক মোঃ আফছার আলী, ইউপি চেয়ারম্যান প্রানোতোশ চন্দ্র দেবশর্মা, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল হাই চৌধুরী, চন্ডিপুর এম দাখিল মাদরাসার সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন, মাদ্রাসা সুপার মোঃ মোখলেছুর রহমান প্রমুখ ।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য