News pic- Treeএম.রুহুল আমিন প্রধান, নবাবগঞ্জঃ দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ জাতীয় উদ্যান থেকে শাল কাছ পাচারের সময় ৪ ভ্যান জ্বালানী কাঠ জব্দ করেছে এলাকাবাসী। গত রোববার দুপুরে শওগুনখোলা গ্রামে উপজেলা কৃষকলীগের সাধারন সম্পাদক মো. আব্দুর রাজ্জাকসহ প্রায় বিশজন গ্রামবাসী চরকাই রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান সরকার, নবাবগঞ্জ বিট কর্মকর্তা হরিপদ দেবনাথের সামনে অভিযোগ করেন, হরিপদ দেব নাথ গাছ চোরদের সাথে যোগসাজোশে প্রতিনিয়ত রাতের অধারে জাতীয় উদ্যানের মূল্যবান শাল গাছ পাচার করেছেন।

শনিবার রাতে নয়টি ভ্যানে করে গাছ চোররা শালগাছ চুরি করে নিয়ে যাওয়ার সময় গ্রামবাসী ধাওয়া করে কাটসহ চারটি ভ্যান জব্দ করে। হরিপদ দেবনাথ গাছ চোরদের সাথে কোন প্রকার সংশ্লিষ্টতার কথা অস্বীকার করেন। রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান সরকার জানান, ওয়াচারদের জ্বালানি সংগ্রহন স্থগিত রাখা হয়েছে। পরবর্তীদে তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

উল্লেখ্য শাল বনে ঝড়ে পড়া বিপুল পরিমাণ শাল গাছ পড়ে যায়। ওই গাছগুলো আহরন করতে বন বিভাগের অর্থ বরাদ্দ ও জনবল না থাকায় এখন পর্যন্ত প্রায় ৫ কোটি টাকা মূল্যের ঐতিহ্যবাহী শাল গাছ বনেই বিক্ষিপ্ত অবস্থায় পড়ে আছে। চরকাই ফরেস্ট রেঞ্জ এর কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান চৌধুরী জানান- কর্তৃপক্ষের নির্দেশ অনুযায়ী ঝড়ে পড়া শাল গাছ উদ্ধার কাজ অব্যাহত রয়েছে।

তিনি দাবি করেন এই রেঞ্জ’এ যোগদানের পর গাছ চুরি শুন্যের কোটায়। শওগুনখোলা গ্রামে যে ৪ ভ্যান জ্বালানী জব্দ হয়েছে তা তদন্ত করেই ব্যবস্থা নেয়া হবে। নবাবগঞ্জ উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোছাঃ পারুল বেগম জানান- জব্দকৃত শালকাঠ জ্বালানী থানায় সোপর্দ করা হবে।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য