ক্যামেরায়ঃ মোঃ নুর ইসলাম, দিনাজপুর।

ক্যামেরায়ঃ মোঃ নুর ইসলাম, দিনাজপুর।

দিনাজপুর সংবাদাতাঃ ১০ অক্টোবর শনিবার স্তন ক্যান্সার সচেতনতা দিবস উদ্যাপণ উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ স্তন ক্যান্সার সচেতনতা ফোরাম এর উদ্দ্যোগে এবং খুরশীদ জাহান হক ইনষ্টিটিউট অব ক্যান্সার রিসার্চ এন্ড হাসপাতাল এর আয়োজনে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে আলোচনা সভা ও মানব বন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

এ সকল অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জিয়া হার্ট ফাউন্ডেশনের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক একেএম আজাদ, সহ-সভাপতি আফতাব উদ্দিন আহমেদ মন্ডল, নির্বাহী সদস্য আবু তাহের আবু, জামিল আহমেদ ভোলা, রেজিনা ইসলাম, আনোয়ারুল কবির, হাসপাতাল সুপারিনটেনডেন্ট ডাঃ সুধা রঞ্জন রায়, কলেজ অব নার্সিং সাইন্স এর প্রিন্সিপাল মনোয়ারা সুলতানা, ভাইস প্রিন্সিপাল লুসি বিশ্বাস সহ প্রতিষ্ঠানের সকল কর্মকর্তা, কর্মচারী ও সেবিকা বৃন্দ।

আলোচনা সভায় বক্তারা স্তন ক্যান্সার সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে বক্তব্যে বলেন স্তন ক্যান্সার কি? শরীরের অন্যান্য স্থানের মত স্তনে অস্বাভাবিক কোষ বৃদ্ধির ফলে কোন চাকা বা পিন্ডের সৃষ্টি হলে তাকে টিউমার বলে। শরীরে বিনা প্রয়োজনে অনিয়ন্ত্রিত কোষ বিভাজন থেকে এর সৃষ্টি। প্রকৃতি বা বৈশিষ্ট অনুযায়ী স্তনের টিউমার দুই ধরনের। প্রথমটি বিনাইন টিউমার বা অক্ষতিকার টিউমার যা উৎপত্তি স্থলের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকে দুরের বা কাছে অন্য কোন অঙ্গ প্রতঙ্গকে আক্রান্ত করে না। দ্বিতীয়টি ম্যালিগন্যান্ট টিউমার আগ্রাসী বা ক্ষতিকারক টিউমার যা উৎপত্তি স্থলের সীমানা ছাড়িয়ে আশে পাশের অঙ্গ-প্রতঙ্গ কিংবা গ্রন্থিকে আক্রান্ত করে। এমনকি রক্ত প্রবাহের মাধ্যমে দুরের কোন অঙ্গেও আঘাত হানতে পারে।

স্তন ক্যান্সার পরীক্ষা সম্পর্কে এবং নিজেই বিষয়টি উপলব্ধি করা সম্পর্কে বলেন, প্রতিমাসে স্তন পরীক্ষার তারিখ নির্ধারন করা যেমন, ঋতুবতি মহিলাদের মাসিক শেষ হওয়ার এক সপ্তাহের মধ্যে এ পরীক্ষা করলে সবচেয়ে ভাল হয়। কারন সে সময় স্তন কিছুটা হালকা হয়ে থাকে। যাদের ঋতুশ্রাব বন্ধ হয়ে গেছে অথবা জরায়ু অপারেশন হয়েছে তারা মাসে যেকোন একটি দিন বেছে নিতে পারেন মনে রাখার সুবিদার্থে মাসের যে কোন একটি তারিখ নির্ধারণ করে নিতে হবে। আপনার সুনির্দিষ্ট সচেতনতাই এই ভয়াবহ রোগ স্তন ক্যান্সার থেকে মুুক্তি পাওয়ার একমাত্র পথ।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য