03. amirশেষ হয়ে গেল ‘সত্যমেভ জয়তে’র প্রথম পর্ব। প্রতিবারের মতো এবারও বলিউডের মিস্টার পারফেকশনিস্ট আমির খান ভারতের সবচেয়ে আলোচিত বিষয় ধর্ষণ ও নারীদের নিরাপত্তা তুলে ধরেন এই পর্বে। অনুষ্ঠানটির সাম্প্রতিক পর্বটি চারটি পর্বে ভাগ করা হয়েছে। এতে কোনো ধর্ষণের ক্ষেত্রে পুলিশ কর্মকর্তাদের উপেক্ষা, মামলা গ্রহণে অস্বীকৃতী, ডাক্তারদের মেডিক্যাল পরিক্ষার বিস্তারিত ইত্যাদি তুলে ধরা হয়েছে। অনুষ্ঠানটির প্রথম পর্বে ছিল সবার চোখে আঙুল দিয়ে দেখানোর মতো বিষয়। ২০১২ সালের তথ্যে দেখা যায় এক লাখ এক হাজারেরও বেশি ধর্ষণ লিপিবদ্ধ হয়েছে ভারতে। তার মধ্যে প্রায় সাড়ে তিন হাজার ঘটনার বিচার নিষ্পত্তি হয়। এ ছাড়াও প্রায় সাড়ে ১১ হাজার মামলা প্রত্যাহার করা হয়। তবে এটি মোট ধর্ষণের ঘটনার প্রায় ১০ ভাগ। বাকি ঘটনাগুলো কখনো লিপিবদ্ধ করা হয়নি।
ধর্ষণের ঘটনায় সাধারণত পুলিশের ভূমিকা থাকে বিতর্কিত। আমির খান এ ধরনের বেশকিছু ভূমিকা তুলে ধরেছেন, যেখানে পুলিশ মামলা নিতে অস্বীকার করেছে, ধর্ষণের শিকারদের সমঝোতায় আসার আহ্বান জানিয়েছে কিংবা নিগৃহিত নারী ও তার পরিবারকে থানাহাজতে আটকে রেখেছে। আরেকটি ঘটনায় দেখা যায় শ্রেণীর ভিত্তিতে ধর্ষণের শিকারকে শ্রেণীর ভিত্তিতে বিবেচনা করায় পরিস্থিতি গুরুতর হয়ে ওঠে। এছাড়া মেডিক্যাল টেস্টের জন্য নির্দিষ্ট নীতিমালা না থাকায় তা ডাক্তার ইচ্ছেমতো করা হয়। ফলে এটি অনেকের কাছেই বিব্রতকর হয়ে ওঠে। বিচারে দীর্ঘসূত্রিতাও এক্ষেত্রে একটি বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়ায়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য