হিলি সীমান্ত ও ইমিগ্রেশনে অতিরিক্ত সতর্কতা জারিহিলি (দিনাজপুর) সংবাদাতাঃ সম্প্রতি দেশে দুইজন বিদেশি নাগরিক হত্যার ঘটনায় হিলি স্থলবন্দরের ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট এলাকায় বিদেশি নাগরিকদের চলাচলের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

এছাড়া হিলি সীমান্ত এলাকা ও রেলপথে বাড়তি সতর্কতা জারি করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও রেলওয়ে পুলিশ।

খুনিরাসহ যেকোনো ধরনের অপরাধীরা যাতে কোনোভাবেই দেশ থেকে ভারতে পালিয়ে যেতে না পারেন, এজন্য এই সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

এ সংক্রান্ত নির্দেশনা রোববার হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট, বিজিবি ও রেলওয়ে পুলিশের কাছে এসেছে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট সূত্র।

হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রফিকুজ্জামান ও বিজিবি-৩ জয়পুরহাট ব্যাটালিয়নের অপারেশন অফিসার মেজর নাসির ঈমাম রুমী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের ওসি মো. রফিকুজ্জামান জানান, চেকপোস্ট হয়ে ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে যাতায়াতের ক্ষেত্রে সন্দেহভাজন ব্যক্তিদের জিজ্ঞাসাবাদের মাধ্যমে নিশ্চিত হওয়ার পরই তাদের ভারতে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে।

এছাড়া চেকপোস্টে মানবতাবিরোধী অপরাধীসহ অন্যান্য অপরাধীদের তালিকা টাঙানো রয়েছে। সেগুলোও চেক করা হচ্ছে।

তিনি আরো জানান, বিদেশি নাগরিকদের যাতে কোনো প্রকারের হয়রানি বা ক্ষতি না হয় সে বিষয়ে সতর্ক রয়েছেন তারা। কোনো  অপরাধী যাতে দেশ থেকে বাইরে না যেতে পারেন সেদিকেও সার্বক্ষণিক  নজরদারি রয়েছে।

এদিকে, হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের পাশাপাশি হিলিসহ আশেপাশের সীমান্ত এলাকাগুলো দিয়ে কেউ যেন সীমান্ত অতিক্রম করতে না পারে সেজন্য সীমান্তে বিজিবির টহল জোরদার করাসহ অতিরিক্ত সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

সেইসঙ্গে হিলি রেলওয়ে স্টেশন এলাকাতেও বিদেশি নাগরিকরা যেন নিরাপদে চলাচল করতে পারে সে বিষয়ে সতর্ক রয়েছেন রেলওয়ে পুলিশ।

বিজিবি-৩ জয়পুরহাট ব্যাটালিয়নের অপারেশন অফিসার মেজর নাসির ঈমাম রুমী জানান, সীমান্ত দিয়ে অবৈধ পারাপারের ক্ষেত্রে বিজিবি সতর্কাবস্থায় রয়েছে। সীমান্তে সন্দেহভাজন কাউকে পেলে নজরদারিসহ জিজ্ঞাসাবাদের পর আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশনা পেয়েছেন তারা। তথ্যঃ বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য