News pic 2নবাবগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ সোমবার দিনাজপুরের নবাবঞ্জে উপজেলা আইন শৃংখলা সমন্বয় সভা নির্বাহী অফিসার এস.এম মনিরুজ্জামান আল-মাসউদ’এর সভাপতিত্বে পরিষদ সভাকক্ষে সভা অনুষ্ঠিত হয়। ওই সভায় উপজেলার ৯নং কুশদহ ইউনিয়নের পল্লীতে বিভিন্ন স্পর্টে আদিবাসী পাড়ায় মাদক তৈরি ও ক্রয়-বিক্রয়ের জমজমাট আসর চলছে বলে অভিযোগ করেছেন ওই ইউনিয়নে পরিষদের চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা মোঃ আজিজুল হক।

তিনি আরও জানান- তার ইউনিয়নে কুষ্টিপাড়ায় সম্প্রতি নির্বিচারে বন বিভাগের গাছ প্রকাশ্যে দিবালোকে কেটে উজাড় করে জমি দখলের মহোৎসব চলছে। একে কেন্দ্র করেই বন বিভাগের মদদেই ওই এলাকায় জমি দখলের ঘটনায় একজন নিহত হয়। এ ঘটনায় নিহতের পরিবারের লোকজন বিবাদীদের বাড়ী-ঘর ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে। এ বিষয়ে একদিকে হত্যা মামলা অন্যদিকে ভাংচুর ও লুটপাটের মামলা দায়ের হয়েছে।

ইউপি চেয়ারম্যান আরও জানান- ওই এলাকায় কুষ্টিয়াপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দু’পক্ষের পাল্টাপাল্টি মামলার খেসারত দিচ্ছে কোমলমতি শিশুরা। ওই সভায় থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ আমিরুল ইসলাম জানান- বর্তমান ওই এলাকায় আইন শৃংখলা নিয়ন্ত্রনে রয়েছে।

বিবাদী পক্ষের কিছু ছাত্র/ছাত্রী নিজেদের ভয়ের কারণে বিদ্যালয়ে আসছে না। আইন শৃংখলা সমন্বয়ের সভাপতি নির্বাহী অফিসার জানান- আমরা ওই এলাকায় অভিভাবকদের নিয়ে আইন শৃংখলা সভা করব। যদি কোন ব্যক্তি কোমলমতি শিশুকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আসতে বাধা দেয় তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আফতাবগঞ্জ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোঃ মিজানুর রহমান জানান- আদিবাসী পল্লীতে মাদকের ২/১ টি জায়গায় স্পট রয়েছে। ইতোমধ্যেই বিভিন্নভাবে অভিযান পরিচালনা করে চোরাই মদ উদ্ধার সহ মাদক তৈরি ও বিপনন সাথে জড়িতদের জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। এছাড়াও সভায় বাল্য বিবাহ, বিদেশী নাগরিকদের নিরাপত্তার জন্য উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ব্যাপক উদ্দ্যেগ গ্রহণ করা হয়েছে।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য