হত্যাচিরিরবন্দর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ ধর্ষনের চেষ্টা ব্যর্থ হওয়ায় অবশেষে গৃহবধুকে জোরপূর্বক বিষ খাইয়ে হত্যা করেছে দুই লম্পট। ঘটনাটি ঘটেছে গত রোববার রাতে দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলার ভিয়াইল বোর্ডপাড়া গ্রামে।

এ ব্যাপারে নিহতের স্বামী ইউনুস আলী গতকাল সোমবার চিরিরবন্দর থানায় একটি অভিযোগপত্র দায়ের করেছেন। অভিযোগপত্র ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, প্রতিদিনের ন্যায় নিহত গৃহবধু শরিফা বেগমের (২৩) স্বামী ইউনুস আলী পার্শ্ববর্তী দুর্গাডাঙ্গা বাজারে নিজস্ব খাবারের হোটেল বন্ধ করে গভীররাতে বাড়ী ফিরতেন।

স্বামীর গভীররাতে বাড়ী ফেরার সুযোগকে কাজে লাগিয়ে ওইদিন রাত সাড়ে আটটায় একই পাড়ার সেতাবউদ্দীনের ছেলে আনিছুর রহমান (২৭) ও আব্দুল জব্বারের ঘরজামাই খবিরউদ্দীন (৫০) ইউনুসের বাড়ীতে ঢুকে জোরপূর্বক ধর্ষনের চেষ্টা চালায়।

ধর্ষনে ব্যর্থ হলে ক্ষোভে লম্পটরা গৃহবধূকে বাড়ীর আঙ্গিনায় চিৎ করে ফেলে বিষ খাইয়ে হত্যার চেষ্টা চালায়। এসময় শরিফার চিৎকারে প্রতিবেশীরা টের পেয়ে দৌড়ে এলে লম্পটরা পালিয়ে যায়। পরে শরিফাকে গুরুতর অসুস্থ্য অবস্থায় উদ্ধার করে দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করায়। রাতেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় শরীফার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় এলাকায় তোলপাড় শুরু হলে পরদিন সোমবার সকালে চিরিরবন্দর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফিরোজ মাহমুদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। ঘটনার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই ইফতেখারুল জানান, লাশের ফরেনসিক রিপোর্ট ছাড়া আপাতত কিছু বলা যাচ্ছেনা। তবে আনিছুর ও খবির পলাতক রয়েছে।

চিরিরবন্দর থানার ডিউটি অফিসার জানান, জমা-জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে এই হত্যাকান্ডটি সংঘঠিত হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে কোন মামলা দায়ের করা হয়নি।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য