সাকিলের জন্য সাকিলের পাশে২দিনাজপুর জিলা স্কুলের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্র সাকিল। ছোট্ট সাকিলের দেহে এই অল্পো বয়সেই জায়গা করে নিয়েছে ক্যান্সারের মত একটি ভয়াবহ ব্যাধি। সাকিলের বাবা রশিদুল ইসলাম একজন চতুর্থ শ্রেণীর সরকারী কর্মচারী। তাই স্বাভাবিকভাবেই উনার পক্ষে ক্যান্সারের মত ব্যায় বহুল একটি চিকিৎসার সম্পূর্ণ খরচ নির্বাহকরা সম্ভব হচ্ছেনা। তার উপরে সঠিক সময়ে রোগ নির্ধারণ করতে না পারায় দু বার সাকিলকে অপারেশনের মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে।
সাকিলের জন্য সাকিলের পাশে১
উনার নিজস্ব সম্বল বলতে যা কিছু ছিল সবটুকু শেষ করেছেন সন্তানের চিকিৎসার পেছনে। সাকিলের পরবর্তী চিকিৎসার জন্য যখন উনি পুরোপুরি সকলের সাহায্যের উপর নির্ভরশীল ঠিক তখনই কজন ছেলে নিঃস্বার্থ ভাবে সাকিলের বাবার পাশে এসে দাড়িয়েছে, তারা দ্বারে দ্বারে ঘুরছে সহায়তার জন্য।
সাকিলের জন্য সাকিলের পাশে৩
এরা প্রকৃত মানুষ আমাদের দিনাজপুরের সন্তান আমাদের সন্তান। স্বার্থপর পৃথিবীতে এখনও তাদের ভিতরে জ্বেগে আছে প্রবল আবেগ ভালবাসা আর আশার আলো। রাসেল, রায়হান, নাফিউল, জামান, সাবাদ, উদয়, টিপু, আদনান, অন্তর প্রতিদিন ছুটছে দিনাজপুর সরকারি কলেজ সহ বেশ কিছু সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে।
সাকিলের জন্য সাকিলের পাশে
সোশাল মিডিয়া ফেসবুকে সাকিলকে সহযোগিতার জন্য তারা একটি পেজ ওপেন করেছে সাকিলের জন্য, সাকিলের পাশে (সাহায্য নয়, দায়বদ্ধতা) নামে।

বিরলের বেশ কিছু স্কুল ও কলেজ থেকে সাকিলের চিকিৎসার জন্য অর্থ সংগ্রহ করেছে তারা। ইতি মধ্যেই দিনাজপুর সরকারি কলেজ শিক্ষক পরিষদ থেকে সহযোগিতা করবেন বলে জানানো হয়েছে। দিনাজপুরের একটি ফেসবুক গ্রুপ ইতিমধ্যেই রাস্তায় রাস্তায় ঘুরে সাকিলের জন্য অর্থ যোগাড় করছে।
সাকিলের জন্য সাকিলের পাশে৪
আরেকটি গ্রুপ দিনাজপুর মেডিকেল থেকে অর্থ সংগ্রহ করার চেষ্টা করছে। সাকিবের চিকিৎসার জন্য বর্তমানে দিনাজপুর জিলা স্কুলের 2007, 2011 ও 2015 এর ব্যাচের ছেলেরা নানা জায়গা থেকে অর্থ সংগ্রহ করার আপ্রাণ চেষ্টা করছে এমনকি সুদূর অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী দিনাজপুর জিলা স্কুলের প্রাত্তন ছাত্ররা সাহায্য করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। দিনাজপুর এর কৃতি সন্তান জাতীয় ক্রিকেট দলের খেলোয়াড় লিটন দাশ‬ সাকিলের জন্য বড় অংকের টাকা প্রদান করেছেন।
লিটন দাশ
এতটা হয়তো সম্ভব হতো না এই পাগোল ছেলে গুলো এগিয়ে না এলে, সাকিলের উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রথম ধাপে ৫,০০,০০০ (পাঁচ লক্ষ) টাকা প্রয়োজন। সাকিলের বন্ধু ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের অনেকেই এরই মাঝে সাহায্যের জন্য হাত বাড়িয়েছে,  কিন্তু তা প্রয়োজনের তুলনায় একেবারেই অপ্রতুল। আমাদেরসকলের সহযোগিতার প্রয়োজন, সবাই একটু সাহায্যের হাত বাড়ালেই হয়তো সাকিল পুরোপুরি সুস্থ হয়ে আবারো তার স্বপ্নযাত্রা শুরু করবে।

সাকিলের বিস্তারিত তথ্যঃ-
নাম- ইফতেখার রসুল সাকিল
বাবা-রশিদুল ইসলাম
৭ম শ্রেণী, প্রভাতী শাখা, রোল ২,
দিনাজপুর জিলা স্কুল
বাসাঃ ডাবগাছ মসজিদ এর উওর পাশে
সদর, দিনাজপুর।

সাহায্য পাঠানোর ঠিকানাঃ মোঃ রশিদুল ইসলাম
সঞ্চয় হিসাব নং : ৩৪১৪৬৫০৩ (সোনালী ব্যাংক) করপোরেট শাখা, দিনাজপুর।
বিকাশ -০১৯৩৫২৩৪৩৩০ (সাকিলের বাবা)

[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য