PARBATIPUR PIC  1একরামুল হক বেলাল,পার্বতীপুরঃ পার্বতীপুর উপজেলা নির্বাচনে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থীদের মনোনায়ন জমার শেষ দিন গতকাল রবিবার ১৯ দলীয় জোট সমর্থিত বিএনপি’র চেয়ারম্যান পদে তিনজন প্রার্থী মনোনায়ন জমা দিয়েছে। তারা হলেন পার্বতীপুর উপজেলার মন্মথপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান (সাবেক কমনিষ্ট নেতা) আমিনুল ইসলাম শাহ্, বিএনপি’র সাবেক ছাত্রদলের এজিএস, বিশিষ্ট শিল্পপতি লায়ন্স মামুনুর রশিদ মামুন, বিএনপির বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী এস এম জাকারিয়া বাচ্চু। লায়ন্স মামুনুর রশিদ প্রার্থী হওয়ায় পার্বতীপুরে বিএনপি’র তৃনমুল কর্মীদের মধ্যে আনন্দ উল্লাসের ফুলঝড়ি ছড়িয়ে পড়েছে।

দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলা চেয়ারম্যান পদে ১০জন দলীয় মনোনায়ন পত্র কিনে নেয়। এ নিয়ে বিভিন্ন সময়ে নেতা কর্মীরা বিচার বিশ্লেষন করে বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য সাবেক সাংসদ ও পার্বতীপুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি আলহাজ্ব এজেডএম রেজওয়ানুল হক গত ১৮ জানুয়ারী পৌর অডিটরিয়ামে আবেগ প্রবন হয়ে এদের মধ্যে থেকে সাবেক কমনিষ্ট নেতা ও মন্মথপুর ইউনিয়নের ২ বারের পরাজিত চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম শাহকে ১৯ দলীয় জোট সমর্থিত চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী ঘোষনা করেন। এ দিন বিএনপি সহ জোটের অনেক তৃনমুল কর্মীদের মধ্যে নিরুষাহিত ও হতাশার সৃষ্টি হয়।

অনেক কমীরা বলেন, চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম শাহ উপজেলার মন্মথপুর ইউনিয়নের ৩বার চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়ে গতবার ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। বর্তমানে পরাজিতদের সারীতে। এ ছাড়াও পার্বতীপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সাধারন সম্পাদকের আপন ভগ্নিপতি এবং উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি ও ২৫ বছরের পৌর পিতার ভাগ্নি জামাই। পার্বতীপুর উপজেলা বিএনপি আমিনুল ইসলাম শাহকে ১৯ দলের পক্ষ থেকে উপজেলা চেয়ারম্যান ঘোষনা করায় উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতা-নেত্রী সহ তৃনমুল পর্যয়ের নেতা কর্মীরা খুশি হয়েছেন আবাও বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি হাফিজুল ইসলাম ফুলের মালা গলায় দিবেন।

এদিকে, পার্বতীপুর উপজেলা নির্বাচনে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থীদের মনোনায়ন জমার শেষ দিন গতকাল রবিবার ১৯ দলীয় জোট সমর্থিত বিএনপি’র উপজেলা চেয়ারম্যান পদে বিএনপি’র সাবেক ছাত্রদলের এজিএস, বর্তমান উপজেলা বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য, বিশিষ্ট শিল্পপতি লায়ন্স মামুনুর রশিদ মামুন মনোনায়ন পত্র জমা দেয়ায় পার্বতীপুরে বিএনপি’র তৃনমুল কর্মীদের মধ্যে উল-াসের ফুলঝড়ি ছড়িয়ে পড়েছে। ফিরছে আনন্দ। এর পরও হতাসার মধ্যে রয়েছে তৃণমূল পর্যায়ের বিএনপি’র নেতা কর্মীরা। তারা ভাবছেন পার্শবতী নীলফামারী জেলার সৈয়দপুর উপজেলা বিএনপি’র নেতা সাবেক সাংসদ সদস্য ও পৌর মেয়র আমজাদ হোসেন সরকার ভজের ভুল সিদ্ধান্তের করনে ১৯ দলীয় জোটের প্রার্থীর পরাজয় হয়েছে। এমনি কি হবে পার্বতীপুর উপজেলায়?  

বিএনপি’র সাবেক ছাত্রদলের এজিএস, বর্তমান উপজেলা বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য, বিশিষ্ট শিল্পপতি লায়ন্স মামুনুর রশিদ মামুনকে দলীয় মনোনয়ন না দেওয়ায় ইউনিয়ন পর্যায়ের নেতা কর্মীরা হাত গুটিয়ে চাযের দোকানে বসে আড্ডা করছে। তৃণমূল পর্যায়ের নেতা কর্মীদের মনপূত চেয়ারম্যান প্রার্থীকে সমর্থন না দেওয়ার পেছনে কি কি কারন থাকতে পারে সে বিষয়ে খতিয়ে দেখতে বিএনপির কেন্দ্রীয় পর্যায়ের নেতাদের দ্রুত সিদ্ধান্তের দাবি জানিয়েছেন। তৃণমূল নেতা কর্মীরা ও সাধারণ মানুষেরা বলেছেন, এ তরুণ নেতাকে মনোনয়ন দেওয়া হলে ১৯ দলের প্রার্থী হয়ে তিনি বিজয় ছিনিয়ে আনতে একটুও বেগ পেতে হবে না।

সেই সাথে আগামী জাতীয় নির্বাচনে এ আসনটি ১৯ দলের পক্ষে এমপি নির্বাচিত হবে এমনটাই প্রত্যাশা ১৯ দলসহ সাধারণ মানুষের অভিমত। এছাড়াও বর্তমান ক্ষমতাশীন দলের নেতাদের স্বজন প্রীতির কারনেও তাদের তৃণমূল পর্যায়ের নেতা কর্মীরা এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে নতুন মুখ খুঁজছেন। যত দ্রুত সম্ভব ১৯ দলের চেয়ারম্যান পদে মনোনীত প্রার্থীর পক্ষ থেকে সমর্থন ফিরিয়ে নিয়ে তরুণ উদীয়মান নেতাকে মনোনয়ন দিতে খালেদা জিয়ার দৃষ্টি আকর্ষন করেছেন ১৯দলসহ পার্বতীপুরের সর্বস্তরের সাধারন মানুষেরা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য