Lebu Moপলাশবাড়ী (গাইবান্ধা) প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলা পরিষদের বরখাস্তকৃত চেয়ারম্যান ও জেলা জামায়াতের সাংগঠনিক সেক্রেটারী আবুল কাওসার মোঃ নজরুল ইসলাম লেবু (৫৫)ও তার পুত্র পলাশবাড়ী সাঈদী মুক্তি আন্দোলনের সভাপতি এ্যাডঃ গোলাম আযমকে (৩০) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গত শুক্রবার দিবাগত রাত ১১টার দিকে পলাশবাড়ী উপজেলা শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের সেক্রেটারী নিশ্চিতপুর গ্রামের শাজাহানের বাড়ীতে জামায়াত নেতা নজরুল ইসলামের নেতৃত্বে চলমান আন্দোলন নিয়ে নাশকতা পরিকল্পনায় গোপন বৈঠক চলছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ খবর পেয়ে পলাশবাড়ী থানা অফিসার ইনচার্জ মজিবুর রহমানের নেতৃত্বে এসআই মুছাসহ সঙ্গীয় ফোর্স শাজাহানের বাড়ীতে অভিযান চালায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে জামায়াত-শিবির নেতাকর্মী পুলিশকে লক্ষ্য ব্যাপক ককটেল বিস্ফোরন ঘটায়।

এসময় পুলিশ পাল্টা শর্টগানের গুলি ছুড়লে জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীরা পালিয়ে যায়। পুলিশ ধাওয়া করে উপজেলা সদরের ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের ব্র্যাক এলাকা হতে পালানোর সময় জামায়াত নেতা নজরুল ইসলাম ও তার পুত্র গোলাম আযমকে গ্রেফতার করে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে দুটি মোটরসাইকেলসহ ৬টি তাজা ককটেল ও ৭টি চকলেট বোমা উদ্ধার করে।

এ ব্যাপারে থানা অফিসার ইনচার্জ মজিবুর রহমান জানান, গ্রেফতারকৃত জামায়াত নেতা আবুল কাওসার মোঃ নজরুল ইসলাম লেবু ও তার পুত্র গোলাম আযমের বিরুদ্ধে নির্বাচনের আগে ও পরে ভোট কেন্দ্র জ্বালানো, পুলিশ হত্যা, গাড়িতে অগ্নিসংযোগসহ বিভিন্ন স্থানে সহিংসতা ও নাশকতায় নেতৃত্ব দেওয়ার অভিযোগে পলাশবাড়ী থানাসহ গাইবান্ধা জেলার বিভিন্ন থানায় ৩ (তিন) ডজনের অধিক মামলা রয়েছে।

এদিকে জামায়াত নেতা নজরুল ইসলাম লেবু পুত্রসহ গ্রেফতার হওয়ায় যেকোন অনাকাঙ্খিত ঘটনা এড়াতে সদরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য