DSC_5129আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ সাহাবাজ নামক স্থানে ঘাঘট নদীর বেড়িবাঁধ ভেঁঙ্গে ৬ গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।

জানা যায়, মঙ্গলবার রাতে সর্বানন্দ ইউনিয়নের উক্ত দক্ষিণ সাহাবাজ নামক স্থানে ঘাঘট নদীর ৪০ ফুট রেড়িবাঁধ ভেঙ্গে যায়। এতে ৬ গ্রামের প্রায় ২ হাজার ৫’শ পরিবার পানিবন্দি হয়ে  পড়েছেন। এছাড়া উজান থেকে নেমে আসা পানির ঢলে তিস্তা, ব্রহ্মপত্র ও বামনডাঙ্গায় ঘাঘট নদীর পানি বিপদ সীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত  হচ্ছে।

এতে ঘাঘট নদীর খর স্রোতে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বেরিবাঁধ ভেঙ্গে গেলে উত্তর সাহাবাজ, দক্ষিণ সাহাবাজ, গারোকাটা, মাষ্টারপাড়া, পাটকাপাড়া, সাতগিরি, হিরোবাজার, মতিনবাজার, বামনডাঙ্গা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে ও ভূমি অফিসসহ সর্বানন্দ ও বামনডাঙ্গা ইউনিয়নের নব্বই ভাগ এলাকা পানির নিচে তলিয়ে যায়।

এছাড়া বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, আমন ক্ষেত, সবজি, কলাবাগান, আখ, পানিতে নিমজ্জিত হয়। পানি বন্দি হয়ে পড়ে দু’ইউনিয়নের হাজার হাজার মানুষ।

বুধবার দুপুরে স্থানীয় সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন, জেলা প্রশাসক আব্দুস সামাদ, পুলিশ সুপার-আশরাফুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার-আবদুল হাই মিলটন, পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা নুরন্নবী সরকার, থানা অফিসার ইনচার্জ মোজাম্মেল হক দুর্গত গ্রাম গুলো পরিদর্শন করেন।

এর আগে বামনডাঙ্গা ফিলিং স্টেশন চত্বরে বন্যা দুর্গত ২’শ পরিবারকে ১০ কেজি করে চাল বিতরণ করেন। ছবি সংযুক্ত
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য