Jail 4নীলফামারী সংবাদাতাঃ সংখ্যালঘু পরিবারের বাড়িতে হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ এবং নাশকতার মামলায় নীলফামারীতে বিএনপি, জামায়াত শিবিরের ১৪ নেতাকর্মীকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।

গত মঙ্গলবার দুপুরে নীলফামারী জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির হয়ে বিএনপি জামায়াতের নেতা-কর্মীরা জামিন আবেদন করলে আদালতের বিচারক সামিউল ইসলাম জামিন না মুঞ্জুর করে তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। আটককৃতরা হলেন ইউনূস আলী, শহিদুল হক, আবদুল ওয়াহাব, একরামুল হক, তাজম, রফিকুল ইসলাম, আমজাদ হোসেন, বাদশা মিয়া, হামিদুুল ইসলাম, নিজাম উদ্দিন, আলাই মামুদ, হাফিজুল ইসলাম, আবদুল  খালেক ও  শহিদ।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৩ সালের ১২ ডিসেম্বর জেলা সদর উপজেলার লক্ষ্মীচাপ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান শ্যামচরণ রায়ের বাড়িতে হামলা চালায় অবিযুক্তরা। এমন ভাংচুরের অভিযোগে ১৭ ডিসেম্বর শ্যামচরণ রায়ের ছেলে নারায়ণ চন্দ্র রায় বিএনপি জামায়াতের ২৮নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো ৪০/৫০ জনের নামে নীলফামারী সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এ মামলার সূত্র ধরে আসামিরা গত মঙ্গলবার দুপুরে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করে।

এতে আদালতের বিচারক সামিউল ইসলাম জামানি না মঞ্জুর করে সকলকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। নীলফামারী আদালতের (সদর জিআরও) শাহারুল ইসলাম জানান, মামলা দায়ের পর থেকে আসামিরা সকলেই পলাতক রয়েছে। মঙ্গলবার মামলার ১৪জন আসামি জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করে। এতে আদালতের বিচারক সামিউল ইসলাম জামিন না মঞ্জুর করে আসামীদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য