মাদক প্রতিরোধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করার নির্দেশপুলিশের রংপুর রেজ্ঞের ডিআইজি হুমায়ুন কবীর বলেছেন রংপুর বিভাগে মাদক কেনা বেচা সহ সকল কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করতে হবে। এ ব্যাপারে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করার নির্দেশ দেন তিনি। রোববার সকালে রংপুরে ডিআইজির সম্মেলন কক্ষে আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় কৃতিত্বপুর্ন অবদান রাখার জন্য রংপুর বিভাগের ১১ পুলিশ কর্মকতৃাদের মাঝে পদক বিতরণ করার সময় প্রধান অতিথির বক্তৃতা কালে এসব কথা বলেন।

ডিআইজি হুমায়ুন কবীর শুক্রবার রাতে নীলফামারী জেলার সৈয়দপুরে ট্রেনের সাথে পুলিশের ভ্যানের সংঘর্ষে ৪ পুলিশ সদস্য নিহত হবার ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করে ড্রাইভারদের সতর্কতার সাথে গাড়ি চালানোর পরামর্শ দেন। তিনি বলেন রংপুর বিভাগে আইন শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে আরো কঠোরভাবে কাজ করতে হবে। এজন্য যাঁরা ভালো কাজ করবে তাদের পুরস্কৃত করা হবে আর যাঁরা দায়িত্বে অবহেলা করবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের হুশিয়ারী দেন তিনি।

ডিআইজি রংপুর বিভাগের প্রতিটি জেলার পুলিশ সুপারদের নিজ নিজ জেলায় যে সব পুলিশ সদস্য ভালো কাজ করবে তাদের এ ভাবেই পুরস্কৃত করার আহবান জানান। এতে করে তাদের মাঝে কাজ করার স্পৃহা বাড়বে বলেও জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে আইন শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে কৃতিত্বপুর্ন অবদান রাখার জন্য রংপুর বিভাগের মধ্যে পঞ্চগড়কে শ্রেষ্ঠ জেলা হিসেবে পুলিশ সুপার গিয়াস উদ্দিন আহাম্মেদকে পদক প্রদান করা হয়। পদক প্রাপ্ত অন্যান্য পুলিশ সদস্যরা হলেন চৌকস এস আই হিসেবে ২০টি জিআর ১০টি সিআর ও ১টি সাজা পরোয়ানা তামিল এবং ৬টি মামলা নিষ্পত্তি করার জন্য রংপুরের কোতোয়ালি থানার হোসেন আলী , শ্রেষ্ঠ তদন্ত কর্মকর্তা একই থানার এস আই এরশাদ আলী, শ্রেষ্ঠ পুলিশ পরিদর্শক হিসেবে রংপুরের মিঠাপুকুর থানার ওসি হুমায়ুন কবীর , শ্রেষ্ঠ কমিউনিটি পুলিশিং কর্মকর্তা হিসেবে লালমনিরহাট জেলার হাতিবান্ধা থানার এসআই আনিছুর রহমান , শ্রেষ্ঠ ডিএসবি কর্মকর্তা হিসেবে একই জেলার ডিআইও -১ শামসুর হক, শ্রেষ্ঠ কোর্ট কর্মকর্তা হিসেবে পঞ্চগড় জেলার সদর কোর্টের এস আই নুরুল ইসলাম , ২শ কেজি ৮শ গ্রাম গাঁজা সহ ট্রাক আটকের জন্য লালমনিরহাট সদর থানার এসআই ছিদ্দিকুল ইসলাম , ৫শ৬৭টি রেজিষ্ট্রেশনবিহিন মোটরসাইকেল আটক , ২১১টি মটরযান আইনে মামলা রুজু এবং ১ লাখ ৮৬ হাজার ৩শ ২৫ টাকা জরিমানা আদায়ের জন্র লালমনিরহাট সদর ট্রাফিক কর্মকর্তা সার্জেন্ট স্বজল কুমার বকশী ৪৮টি জিআর ১৪টি সিআর ও ১টি সাজা পরোয়ানা তামিল করার জন্য রংপুরের কোতোয়ালি থানার এএসআই জাহাঙ্গীর আলম(৩) এবং ১ হাজার ২ বোতল ফেন্সিডিল ও ২টি মোটরসাইকেল আটকের জন্য লালমনিরহাট ডিবির পুলিশ কনস্টেবল  রোমেল উদ্দিনকে এ পদক দেওয়া হয। অনুষ্ঠানে রংপুর বিভাগের ৮ জেলার পুলিশ সুপার সহ ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য