জয়পুরহাটে শিশুর মাথার চুল ও চোখের ভ্রু কেটে দেয়ায় হোটেল মালিকসহ আটকজয়পুরহাট সংবাদাতাঃ জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে সাহাদ (১০) নামে এক শিশু হোটেলে কাজ করতে রাজি না হওয়ায় তার দু’চোখের  ভ্রু ও মাথার চুল কেটে বিকৃত করে দেয়ার ঘটনায় পুলিশ হোটেল মালিক , কর্মচারী ও সেলুন মালিক কে আটক করেছে।

শনিবার সন্ধ্যায় পৌর সদরের কলেজ মসজিদ সংলগ্ন মেগা হোটেল অ্যান্ড রেষ্টুরেন্টে এ ঘটনাটি ঘটে। সাহাদ আলী আক্কেলপুর তুলসীগঙ্গা নদীর শহর রক্ষা বাঁধের ওপরের সাখিদার পাড়া মহল্লার সহর আলীর ছেলে।

পুলিশ ও সাহাদের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে,গতকাল শনিবার(১৫আগষ্ট) বিকালে মেগা হোটেল অ্যান্ড রেষ্টুরেন্টে পুনরায় কাজ করতে বলায় সে কাজ করতে রাজি না হওয়ায়  সাহাদ কে কৌশলে হোটেলের ভেতরে ডেকে নিয়ে আটক করে রাখে ওই হোটেল  কর্মচারী রুবেল। পরে সাহাদ কে ওই হোটেলের পার্শ্বে অবস্থিত সুমনের সেলুনে নিয়ে গিয়ে জোর করে তার  দু’চোখের ভ্রু  ও মাথার চুল বিকৃত করে কাটিয়ে দেয়।

ওই অবস্থায় সাহাদ কাঁদতে কাঁদতে বাড়িতে ফিরে গিয়ে তাকে হোটেলের লোকজনের নির্যাতন করার বিষয়টি অভিভাবকদের খুলে বলে।সব শুনে তার অভিভাবক ও আত্মীয়-স্বজনরা ক্ষোভে ফেটে পড়েন। বিক্ষুব্ধ অভিভাবকরা সন্ধ্যার দিকে ওই হোটেলের সামনে গিয়ে জোর করে সাহাদের দু’চোখের ভ্রু  ও মাথার চু কেটে দেয়ার তীব্র প্রতিবাদ জানাতে থাকে।

এরই এক পর্যায়ে রাত সাড়ে ৮টার দিকে  ঘটনাটি থানা পুলিশকে জানালে তাৎক্ষনিক পুলিশ গিয়ে ওই হোটেলের মালিক আব্দুল মতিন, কর্মচারী রুবেল ও সেলুন মালিক সুমনকে আটক করে । উল্লেখ্য, ফায়াদ কিছু দিন আগে  ওই হোটেলে কাজ করেছিল।

আক্কেলপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আশরাফুল ইসলাম এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার এবং হোটেল মালিক সহ ৩জনকে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য