জিপিএ-৫ পেয়েছেমো. জাকির হোসেন, সৈয়দপুর প্রতিনিধিঃ এবারের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় (এইচএসসি) সৈয়দপুর উপজেলার ১৩ টি কলেজের মধ্যে ৭টি কলেজ থেকে তিন বিভাগে (গ্রুপ)  ২৩০ জন পরীক্ষার্থী জিপিএ- ৫ পেয়েছে। এর মধ্যে বিজ্ঞান বিভাগে ২০৯ জন, মানবিকে ১১ জন এবং ব্যবসায় শিক্ষায় ১০ জন পরীক্ষার্থী পেয়েছে জিপিএ-৫।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ১৩ টি কলেজের মধ্যে সর্বোচ্চ সংখ্যক পরীক্ষার্থী জিপিএ – ৫ পেয়েছে সৈয়দপুর সরকারী কারিগরী মহাবিদ্যালয় থেকে। এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি থেকে ২০০ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে জিপিএ- ৫ পেয়েছে ১২৪ জন। এরা সবাই বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী। আর দুই বিভাগে ৫৮ জন জিপিএ- ৫পেয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে সৈয়দপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ। এ প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞান বিভাগের ১৯০ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ৫৬ জন এবং মানবিকে ৭৪ জনের মধ্যে ২জন জিপিএ- ৫ পেয়েছে।

সৈয়দপুর লায়ন্স স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে তিন বিভাগে ৩৭ জন জিপিএ- ৫ পেয়েছে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে উপজেলায়। এ প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞান বিভাগে ২৬ জন, মানবিকে ৫জন এবং ব্যবসায় শিক্ষায় ৬ জন পেয়েছে জিপিএ-৫। আর সৈয়দপুর সানফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে তিন বিভাগে ৭ জন জিপিএ-৫ পেয়েছে। এর মধ্যে বিজ্ঞানে ২ জন, মানবিকে ১জন এবং ব্যবসায় শিক্ষায় ৪ জন।

এছাড়াও সৈয়দপুর মহিলা ডিগ্রী মহাবিদ্যালয় থেকে মানবিক বিভাগে ২জন, লক্ষণপুর স্কুল অ্যান্ড কলেজে বিজ্ঞানে ১ জন এবং সৈয়দপুর আদর্শ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের মানবিকে ১ জন পরীক্ষার্থী জিপিএ-৫ পেয়েছে। তবে এবারে উপজেলার কোন কলেজেই শতভাগ পাশের সাফল্য দেখাতে পারেনি।

সৈয়দপুর সরকারী কারিগরী মহাবিদ্যালয়ে অধ্যক্ষ ড. শাহ্ মো. আমির আলী আজাদ তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বলেন, বর্তমানে শিক্ষা ব্যবস্থার সার্বিক পরিস্থিতিতে তাঁর প্রতিষ্ঠান চমৎকার ফলাফল বয়ে এনেছে। তবে তাঁর প্রতিষ্ঠান থেকে তিনি এবারে শতভাগ পাশের আশাবাদী ছিলেন বলে জানান। এবারে তাঁর প্রতিষ্ঠানের ২জন পরীক্ষার্থীর ফেল করার কারণ অনুসন্ধান করে আগামীতে বোর্ড সেরা ফলফলের আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য