Student Vot-Photoগাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ সারাদেশের ন্যায় সরকারের পাইলট প্রোগ্রাম বাস্তবায়নে গণতান্ত্রিক পন্থায় নেতৃত্ব বিকাশের লক্ষ্যে গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার মাধ্যমিক পর্যায়ে তিনটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্টুডেন্ট কেবিনেট গঠনে গতকাল শনিবার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলার গৃধারীপুর আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়, এম.এ সামাদ কারিগরি ও বিজ্ঞান কলেজ (ভোকঃ শাখায়) ও মহেশপুর দাখিল মাদ্রাসায় সকাল ৯টা হতে বিরতিহীন ভাবে বেলা ১টা পর্যন্ত সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। নির্বাচনে গৃধারীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে ৮টি পদের বিপরীতে ৩০ জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। অত্র বিদ্যালয়ে মোট ভোটার সংখ্যা ৬’শ ৩৬ জন। এম.এ সামাদ কারিগরি ও বিজ্ঞান কলেজ (ভোকঃ শাখায়) ৪টি পদের বিপরীতে ৬ জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। এতে মোট ভোটার সংখ্যা ১’শ ২০ জন। অপরদিকে, মহেশপুর দাখিল মাদ্রাসায় ৮টি পদের বিপরীতে ১০ জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। এ প্রতিষ্ঠানে মোট ভোটার সংখ্যা ১’শ ২২ জন। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার একেএম মামুনুর রশিদ ও একাডেমিক সুপারভাইজার জাকির হোসেন তিনটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন সার্বক্ষণিক পরিদর্শন করেন। অন্যদিকে, ভোট কেন্দ্রে গুলোতে পলাশবাড়ী থানা অফিসার ইনচার্জ মজিবুর রহমানের নির্দেশে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় সার্বিক দায়িত্ব পালন করেন এসআই নাজমুল হক, এএসআই মোতাহার হোসেন ছাড়াও সঙ্গীয় ফোর্স। স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচনে মতামত ব্যক্ত করে গৃধারীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম জানান, সরকারের এ উদ্যোগ সত্যিই প্রসংশনীয়। এতে করে শিক্ষার্থীদের মাঝে নেতৃত্বের প্রতিফলন ঘটবে। অপরদিকে এম.এ সামাদ কারিগরি ও বিজ্ঞান কলেজের অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) জেসমিন আরা জানান, এই প্রথম স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন হওয়ায় শিক্ষার্থীদের গণতন্ত্র বিকাশে মনস্বাস্তিক উদ্ভব ঘটাবে। পলাশবাড়ী সাংবাদিক সমন্বয় পরিষদের সভাপতি ফেরদাউছ মিয়ারনেতৃত্বে তিনটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভোটগ্রহণ পরিদর্শন করেন সংগঠনের অন্যান্য সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য