4+narendra-modiআন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতে  দীর্ঘ সময় ধরে চলে আসা বিচ্ছিন্নতাবাদী আন্দোলনের নাগাল্যান্ডে বিদ্রোহীদের সঙ্গে শান্তিচুক্তি সই করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। এর মধ্য দিয়ে ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে ছয় দশক ধরে চলা রক্তক্ষয়ী গেরিলা যুদ্ধের অবসান ঘটতে চলেছে বলেই মনে করা হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সরকারের কর্মকর্তারা জঙ্গি নাগা গোষ্ঠী ‘ন্যাশনাল সোশ্যালিস্ট কাউন্সিল অব নাগাল্যান্ড’ (এনএসসিএন-আইএম)’এর সঙ্গে শান্তি চুক্তি সই করেছেন। সোমবার সন্ধ্যায় মোদি একথা ঘোষণা করেন।

এ দিনের শান্তি চুক্তি ‘ঐতিহাসিক’ বলে জানিয়েছেন তিনি।  ক্ষমতাসীন হওয়ার পর উত্তর-পূর্ব ভারতে শান্তি ফেরানোই তার অন্যতম লক্ষ্য ছিল বলে জানান মোদী। সে লক্ষ্য পূরণ হওয়ায় আনন্দ প্রকাশ করেন তিনি।

“পুরোনো বিদ্রোহী মিটমাট হয়ে যাচ্ছে।এ চুক্তি অন্যান্য ছোট দলগুলোর জন্য অস্ত্র পরিহার করার ইঙ্গিত” বলে মন্তব্য করেন মোদী।

নাগা গোষ্ঠী এনএসসিএন-আইএম এর নেতা মুইভার সঙ্গে টেলিভিশনে প্রচারিত এক সংবাদ সম্মেলনে মোদি বলেন, “আমরা আজ নতুন করে যাত্রা শুরু করছি… ৬০ বছর যুদ্ধ করার জন্য অনেক দীর্ঘ সময়, ক্ষত অনেক গভীর।”

চুক্তির বিস্তারিত তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি। মোদি সরকার জানিয়েছে, তারা  দীর্ঘদিন ধরে অবহেলিত এ অঞ্চলের উন্নয়ন সাধন করতে ইচ্ছুক। উন্নয়ন তহবিল সরবরাহ এবং ভালো অবকাঠামোর মধ্য দিয়ে এ অঞ্চলকে গড়ে তোলার ইচ্ছে প্রকাশ করেন মোদী।

নাগাল্যান্ডের স্বাধীনতার জন্য ৬০ বছর ধরে আন্দোলন চালিয়ে আসছে বিদ্রোহীরা। নাগা গোষ্ঠী এনএসসিএন-আইএম বেশ কয়েক বছর অস্ত্রবিরতি পালন করলেও অন্য নাগা গোষ্ঠী, এনএসসিএম -খাপলাং ভারত সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে এসেছে।

বিদেশে চলেছে নাগাল্যান্ডের একটি নির্বাসিত সরকারও। তবে ১৯৯৭ সালে এনএসসিএন-আইএম ভারত সরকারের সঙ্গে যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করে শান্তি-আলোচনা শুরু করে। অবশেষ সোমবার সে আলোচনা পরিণতি পেল এই শান্তি চুক্তিতে।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য